বৃহস্পতিবার ২৯ জুন, ২০১৭
deutschenews24.de
Ajker Deal

‘এক চীন নীতি’ নিয়ে ট্রাম্পের মন্তব্যে চীনের উদ্বেগ

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ ডিসেম্বর ২০১৬ মঙ্গলবার, ০৫:০৭  এএম

‘এক চীন নীতি’ নিয়ে ট্রাম্পের মন্তব্যে চীনের উদ্বেগ

বন, ডিসম্বের ১২ (ডয়েচেনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটডিই) -- এক চীন নীতিতে অনড় থাকার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সংশয় প্রকাশের পর চীন গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।
চীন ট্রাম্পের প্রতি তাইওয়ান ইস্যুর স্পর্শকাতরতা অনুধাবনের আহ্বান জানিয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গেং শুয়াং সাংবাদিকদের বলেছেন, ওয়াশিংটনের সঙ্গে সম্পর্কের ভিত্তি হচ্ছে ‘এক চীন নীতি’।
রোববার এক টিভি সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের এক চীন নীতি অব্যাহত রাখা উচিত কিনা সে নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিন বলেন, এক চীন নীতি মানতে যুক্তরাষ্ট্রের বাধ্য থাকা উচিত নয়। চীনের কাছ থেকে কোন ধরনের বাণিজ্যিক ছাড় না পেলে এ নীতির গ্রহণযোগ্যতা নেই।
তাইওয়ানকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া একটি প্রদেশ বলে মনে করে চীন।
চীনের নীতিমালায় তাইওয়ান এখনো তার নিজের মুল ভূখণ্ডেরই অংশ।
কদিন আগে তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সাথে ট্রাম্প টেলিফোনে আলাপ করেছিলেন।
আর শুধু এই ফোনালাপেই কূটনৈতিক প্রতিবাদ জানিয়েছিল বেইজিং।
ট্রাম্প অবশ্য এ সম্পর্কে বলেছেন, তিনি কার সাথে ফোনে কথা বলবেন সেটা চীন নির্ধারণ করে দিতে পারে না।
এখন তাইওয়ানকে আবারো আলাদা একটি রাষ্ট্র হিসেবে মার্কিন সরকার যদি স্বীকৃতি দিয়ে বসে তাতে চীনের দিকে থেকে কেমন প্রতিক্রিয়া হবে তা নিয়ে আশংকা তৈরি হয়েছে।
১৯৭৯ সালে তাইওয়ানের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে যুক্তরাষ্ট্র।
এর বদলে তাইওয়ানকে চীনের অংশ হিসেবে ধরেই এক চীন নিতিমালা অনুসরণ করছিলো যুক্তরাষ্ট্র। (সূত্র: বিবিসি, ডয়চেভেলে)

ডয়েচেনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটডিই/এইচএইচ/এমআরএফ