বুধবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৮
deutschenews24.de
Ajker Deal

‘বিদেশিদের আগ্রাসনের’ বিরুদ্ধে লড়বে জার্মানির এএফডি

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ সোমবার, ০৮:৪১  পিএম

‘বিদেশিদের আগ্রাসনের’ বিরুদ্ধে লড়বে জার্মানির এএফডি

 

বন, ২৬ সেপ্টেম্বর (ডয়েচেনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটডিই)- জার্মানির পার্লামেন্টে প্রথমবারের মত আসন পাওয়ার পরই চরম ডানপন্থি দল অলটারনেটিভ ফর ডয়েচলান্ড (এএফডি) ‘জার্মানিতে বিদেশিদের আগ্রাসনের’ বিরুদ্ধে লড়াইয়ের অঙ্গীকার করেছে।

 

এবার জার্মানির নির্বাচনে তৃতীয় ‍বৃহত্তম দল হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে মুসলিম ও শরণার্থীদের চরম বিরোধী দল  এএফডি।

 

মাত্র চার বছর আগে প্রতিষ্ঠিত নব্য নাৎসি সমর্থকদের এই দলটির ডেপুটি চেয়ারম্যান আলেক্সান্ডার গাউল্যান্ড বলেছেন, “আমরা একটি ভিন্ন নীতি চাই।”

 

যদিও এরই মধ্যে দলের দিক নির্দেশনা নিয়ে এএফডি নেতাদের মধ্যে মতবিরোধের খবর এসেছে।

 

এএফডি এবার শরণার্থী বিরোধিতাকে পুঁজি করে নির্বাচনে ভালো ফল করেছে। এএফডি জার্মান সংসদেও আসন পেয়েছে৷  জার্মানির ৫৯৮ আসনের পার্লামেন্ট বুন্ডেসটাগে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই প্রথম কোনও নাৎসি সমর্থক দল আসন নিচ্ছে।

 

নেতা গাউল্যান্ড নির্বাচনী ফলের দিনই সকালে তার বক্তব্যে স্পষ্ট বলে দিয়েছেন, তার দল আপোসহীনভাবে শরণার্থী ইস্যুতে কথা বলবে। যেভাবে দল শরণার্থী সংকটের একেবারে শুরু থেকে প্রচার চালিয়ে এসেছে।

 

সোমবারের সংবাদ সম্মেলনে গাউল্যান্ড বলেছেন, “দশ লাখ মানুষ- বিদেশি- তাদের এদেশে আনা হয়েছে; যারা এ দেশের একটি ‍অংশ নিয়ে নিচ্ছে। আমরা এএফডি এটি চাই না।”

 

“আমি বলতে চাই, ভিন্ন সংস্কৃতি থেকে আসা বিদেশিদের করাল গ্রাসে আমরা জার্মানিকে হারিয়ে ফেলতে চাই না। বিষয়টি খুবই সহজ।”

 

শরণার্থীদের নিয়ে এএফডি’র নেতারা অনেক সময়ই নানা আপত্তিকর মন্তব্য করে এসেছেন। তাদের নানা কথা নাৎসিদেরই স্মরণ করিয়ে দেয়।

 

‘অবৈধভাবে জার্মানিতে প্রবেশকারী শরণার্থীদের দিকে গুলি ছোড়া উচিত জার্মানির বর্ডার পুলিশের’, বলেছিলেন ফ্রাউকে পেট্রি।

 

অভিভাবকহীন অপ্রাপ্তবয়স্ক শরণার্থীর পেছনে রাষ্ট্র কতটা খরচ বহন করবে সে প্রশ্নও তুলেছিলেন দলটির আরেক নেতা।

 

ডয়েচেনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটডিই/এমএম