মঙ্গলবার ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮
deutschenews24.de
Ajker Deal

বাংলাদেশের সময় ধরে রিয়াদ-জেদ্দায় শুরু এসএসসি পরীক্ষা

অহিদুল ইসলাম
প্রকাশিত: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ শুক্রবার, ০২:০২  এএম

বাংলাদেশের সময় ধরে রিয়াদ-জেদ্দায় শুরু এসএসসি পরীক্ষা

পরীক্ষা পরিদর্শনে জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেটের ভারপ্রাপ্ত কনসাল জেনারেল ড. নজরুল ইসলাম-এর সংগে পর্ষদ কর্মকর্তা ও অন্যান্য

 

জেদ্দা, ফেব্রুয়ারি ০২ (ডয়েচেনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটডিই)- বাংলাদেশের সঙ্গে সময় মিলিঢে একই সময়ে সৌদি আরবের রিয়াদ-জেদ্দায় মাধ্যমিক পরীক্ষার শুরু হয়েছে। বুধবার সকাল ৭টায় (বাংলাদেশ সময় ১০ টা) বাংলা ১ম পত্র পরীক্ষা শুরু হয়।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে সৌদি আরবের জেদ্দায় বাংলাদেশ স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় মোট ১৩৭ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। এদের মধ্যে ছাত্র ৫২ এবং ৮৫ জন ছাত্রী। স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, আজকের পরীক্ষায় দুজন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল।

কর্তৃপক্ষ আরও জানিয়েছেন, এবার তত্ত্বীয় পরীক্ষা চলবে ২ ফেব্রুয়ারি থেকে ২ মার্চ পর্যন্ত। বাংলাদেশের সময় ধরে সৌদি সময় সকাল ৭টা থেকে ১০টা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া ব্যবহারিক পরীক্ষা বিকেল ৪টা থেকে শুরু হবে।

বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে, সৌদি আরবের ৮টি কেন্দ্রে ৪৪৬ জন পরীক্ষার্থী এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। এর মধ্যে ২৬১ ছাত্রী এবং ১৮৫ জন ছাত্র।

জেদ্দায় বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হামদুর রহমান এবং পর্ষদ চেয়ারম্যান মার্শেল কবির পান্নু জানান, শিক্ষা বোর্ডের সব নিয়ম মেনে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে, শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতিও ভালো। পরীক্ষা শুরুর আগে তুলনামূলক দুর্বল শিক্ষার্থীদের প্রতি বিশেষ যত্নসহ তাদের বার বার মডেল পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিলো।

দূতাবাসের তত্ত্বাবধানে পরীক্ষার প্রথম দিনে কেন্দ্র পরিদর্শন করেন জেদ্দা কনস্যুলেটের ভারপ্রাপ্ত কনসাল জেনারেল ড. নজরুল ইসলাম ও কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সালাহউদ্দিন। সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হামদুর রহমান। হল সুপারের দায়িত্বে থাকছেন স্কুলশিক্ষক আব্দুল জলিল ও সহকারী হল সুপার মোহাম্মদ শাহ আলম।

কর্তৃপক্ষ জানালে এবার ১০ মিনিটের বিরতি দিয়ে বহুনির্বাচনী (এমসিকিউ) এবং পরে সৃজনশীল বা রচনামূলক (তত্ত্বীয়) পরীক্ষা হবে বলে স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

এদিকে রিয়াদে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে মোট ১১৮ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে ছাত্র ৫৩ এবং ছাত্রী ৬৫। এত বিজ্ঞান বিভাগে ৮৪, ব্যাবসায়ি শিক্ষা শাখা ৩৩ এবং মানবিক বিভাগে ১ জন। এতে পরিদর্শক ছিলেন দূতাবাসের সোনালি ব্যাংক কর্মকর্তা মো. আব্দুল ওয়াহাব। এ সময় বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মো. বদরুল আলমসহ সঙ্গে ছিলেন হাউজ সুপার দেলোয়ার হোসেন, সহকারি হল সুপার সাইদুর রহমান ও আহমদ করিম। তবে স্কুল পর্ষদের কোনো কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন না।

অধ্যক্ষ মো. বদরুল আলম জানান, পরীক্ষার প্রস্তুতি খুবই ভালো। এতে দূতাবাস, স্কুল-পর্ষদ এবং অভিভাবকদের সার্বিক সহযোগিতা রয়েছে। তিনি আরো বললেন, শিক্ষার্থীরা সারা বছর পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়েছে, বিশেষত নির্বাচনী পরীক্ষার পর তাদের মনোযোগ ছিল চূড়ান্ত পরীক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জনের দিকে।

/এমআরএফ/